একক মালিকানাধীন ব্যবসার সুবিধা ও অসুবিধা সমূহ

একক মালিকানাধীন ব্যবসার সুবিধা ও অসুবিধা সমূহ

একক মালিকানা গঠিত ও পরিচালিত ব্যাবসাকে এক মালিকানাধীন ব্যাবসা বলে। এক মালিকানাধীন ব্যাবসা বা এক মালিকানা ব্যাবসায় হলো একজন ব্যাক্তির মালিকানাধীন এবং মালিক কর্তিক পরিচালিত ব্যাবসা। এক  মালিকানাধীন ব্যাবসা এবং মালিক দুটি আলাদা সত্তা নয়। বরং ব্যাবসার  সকল দায়দেনা এবং সম্পদ সমস্তই মালিকের একার। ব্যাবসার লাভ-ক্ষতি মালিক একাই ভোগ করেন। এক মালিকানাধীন ব্যাবসার মালিক ইচ্ছে করলে তার নিজের বা ব্যাবসায়িক নামে ব্যাবসা পরিচালনা করতে পারেন। যেমন ধরুন, আপনার নাম ফুয়াদ আল জাবির। আপনি আপনার নামে ব্যাবসা করতে পারেন অথবা আপনি আপনার ব্যাবসার নাম দিলেন ফুয়াদ ট্রেডাস, মালিক-ফুয়াদ আল জাবির। এভাবেও ব্যাবসা করতে পারেন। আপনার ব্যাবসার নাম অনুসারে আপনাকে ব্যাবসার লাইসেন্স গ্রহন করতে হবে। এক মালিকানাধীন ব্যবসার সুবিধা-অসুবিধা নিম্নরুপ ঃ

সুবিধা সমূহঃ 

১। এ ধরনের ব্যবসা পরিচালনা করা সহজ এবং শুরু করতে কম পূজির প্রয়োজন হয়;

২।এক মালিকের ব্যাবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে অনেক স্বাধীনতা প্রদান করে;

৩। ব্যাবসার সমস্ত দায় মালিকের হওয়ায় অর্থ লগ্নিকারীর সহজে অর্থলগ্নি করতে আগ্রহী হয়;

৪। ব্যাবসা পরিচালনায় গোপনিয়তা বজায় থাকে;

৫। মুনাফার একক মালিকানা;

৬। দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহন করা যায়;

৭। শজে বিপোল সাধন করা যায়;

অসুবিধা সমূহঃ

১। একজন ব্যাক্তির পক্ষে ব্যাবসার সকল পূজি সংগ্রহ করা অনেক কষ্টসাধ্য হয়ে ঊঠে।

২। সকল দায় মালিকের ওপর বর্তায়;

৩। মালিকের মৃত্যু হলে বা ব্যাবসা পরিচালনায় অপরাগ হলে ব্যাবসা বন্ধ হয়ে জায়;

৪। যেহেতু মালিক নিজে ব্যাবসা পরিচালনা করেন তাই মালিকের অনবভিজ্ঞতার কারনে ব্যাবসার ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা থাকে;

৫। সমস্ত ঝুঁকি মালিকের একাই বহন করতে হয়;

৬। সীমিত কর্মক্ষেত্র;


আরো জানুন-

*পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি কি এবং এর সুবিধা ও অসুবিধা সমূহ

Post a Comment

Previous Post Next Post